মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

পূর্ববতী মামলার রায়

খাগরিয়া ইউনিয়নের পূর্ববর্তী মামলার রায়:

খাগরিয়া ইউনিয়ন গ্রাম অদালত এ ইতিপূর্বে ১৫ টি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। ৬টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

vq dig
ায় ফরম

গ্রাম আদালত

৮নং ঢেমশা ইউনিয়ন পরিষদ

উপজেলা- সাতকানিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম

সন-২০১৩ সাল মামলা নং- ০২/২০১৩

বাদী- মো: আবু তৈয়ব      বনাম          লায়লা বেগম গং

ZvwiL

ivq

`¯—LZ

27/04/13

অদ্য অত্র মামলা শুনানীর জন্য দিন ধার্য্য আছে। বাদী ও ০১নং বিবাদী প্রতিনিধিসহ হাজীর আছে। সুতরাং নথি উপস্থাপন করা হইল। বাদী, বিবাদী এবং তাহাদের স্বাক্ষীর সাক্ষ্য  শ্রবণ করা হইল, বাদী দাবী করেন যে, ০১নং বিবাদীনির সহিত ২০১০ইং সনে ইসলামী শরিয়া মতে বিবাহ হয়। বর্তমানে তাহাদের সংসারে ০১টি ছেলে ও ০১টি মেয়ে সন্তান রহিয়াছে। বাদী একজন পেশায় কভার্ট ভ্যান ড্রাইভার। বিগত ডিসেম্বর/১২ইং সনে ০১নং বিবাদীনি, ২,৩ নং বিবাদীর কূ-প্ররোচনায় বাদীর অনুপস্থিতিতে সন্তান, স্বর্ণলংকার. দামী কাপড় চোপর. নগদ টাকা ১৭৫০০/- সহ পিত্রালয়ে পালাইয়া আসে। পরবর্তীতে বাদী নিজে এবং তাহার নিকট আতœীয় স্বজন সহ ০১নং বিবাদীকে বেশ কয়েকবার স্বামীর বাড়ী ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য আসিলে ০১নং বিবাদীনি এবং অপরাপর বিবাদীগণ দু-ব্যবহার করিয়া ফেরত পাঠিয়ে দেয়। বাদী দীর্ঘ ০৩ মাস অপেক্ষা করিবার পর তাহার স্ত্রীকে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য অত্র মামলা আনয়ন করেন। বাদী আরো দাবী করেন যে, ০১নং বিবাদীনি ইতিপূর্বে আরো কয়েকবার নানা তাল বাহানা করে বাদী/স্বামীর অবর্তমানে পিত্রালয়ে পালাইয়া আসে এবং পরবর্তীতে শালিশ বিচারের মাধ্যমে পুনরায় ০১নং বিবাদীনিকে স্বামীগৃহে ফিরিয়ে আনা হয়। যাহা স্বাক্ষীগণের সাক্ষ্যমতে সমস্ত ঘটনা প্রমানি হয়। ০১নং বিবাদীনি তাহার বক্তব্যে ও ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত পাওয়া যায়। বাদী ও ০১নং বিবাদীনির বক্তব্য পর্যালোচনা করিয়া দেখা যায় যে, ০২, ০৩নং বিবাদী অর্থাৎ ০১নং বিবাদীনির পিতা ও ভাইয়ের কূ-প্ররোচনায় ০১নং বিবাদীনি তাহার স্বামীগৃহ হইতে বার বার পালাইয়া আসে। উভয় পক্ষের প্রতিনিধিসহ পর্যালোচনা করিয়া দেখা যায় যে, ০২, ০৩ নং বিবাদী তাহাদের অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য বাদী ও ০১নং বিবাদীনির মধ্যে সাংসারিক মনোমালিন্য সৃষ্টি করিতেছে। ০১নং বিবাদীনিকে তাহার পিতা ও ভাইদের কূ-পরামর্শ গ্রহণ করা হইতে বিরত থাকিয়া স্বামীর গৃহে ফিরে গিয়া সংসার জীবন চালাইয়া যাওয়ার জন্য পরামর্শ দিলে তাহাতে তিনি সম্মত হন। উভয়পক্ষের সম্মতিক্রমে আগামী ২৯/০৪/২০১৩ইং তাং সোমবার ১১.০০টার সময় ইউনিয়ন পরিষদে বাদী, বিবাদী এবং উভয় পক্ষের প্রতিনিধিগণের উপস্থিতিতে ০১নং বিবাদীনিকে তাহার স্বামীর বাড়ী ফিরে গিয়া তাহাদের সংসার জীবন চালিয়ে যাওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত প্রদান করিয়া অত্র মামলা চুড়ান্ত রায় প্রদান করা হইল। কিন্ত ধার্য তারিখে বাদী, তাহার মনোনিত প্রতিনিধি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ হাজির হইলেও বিবাদীগণ ইচ্ছাকৃত গড়-হাজির থাকেন।

এমতাবস্থায় গ্রাম আদালত উভয় পক্ষকে স্বামী-স্ত্রী হিসাবে তাহাদের সংসার জীবন চালিয়া নেওয়ার যথাসাধ্য চেষ্টা করিয়াও বিবাদীগণের একগুয়েমী আচরণের কারণে তাহা সম্ভব হইতেছে না বিধায় বাদীকে বিবাদীগণের বিরুদ্ধে যথাযথ আদালতে মামলার মাধ্যমে  প্রতিকারের জন্য পরামর্শ দেওয়া হইল।

প্রতিনিধিগণের নাম ও স্বাক্ষর:

১। জনাব মামুনুর রশিদ, ইউ,পি মেম্বার        স্বা:অষ্পষ্ট

                                                   ২৭/০৪/১৩

২। জনাব আবদুল মতলব, গণ্যমান্য ব্যক্তি    স্বা:অষ্পষ্ট

                                                   ২৭/০৪/১৩

৩। জনাব সাচি মিয়া, ইউ,পি মেম্বার           স্বা:অষ্পষ্ট

                                                   ২৭/০৪/১৩

৪। জনাব আবদুছ ছফুর, গণ্যমান্য ব্যক্তি      স্বা:অষ্পষ্ট

                                                   ২৭/০৪/১৩ায় ফরম

গ্রাম আদালত

৮নং ঢেমশা ইউনিয়ন পরিষদ

উপজেলা- সাতকানিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম

সন-২০১৩ সাল মামলা নং- ০২/২০১৩

বাদী- মো: আবু তৈয়ব      বনাম          লায়লা বেগম গং

 

 

 


Share with :

Facebook Twitter